রাজনীতি

ভূরুঙ্গামারী দুই সম্পাদকের মধ‍্যে লড়াইয়ের আভাস

আমিনুর রহমান বাবু, ভুরুঙ্গামারী   কুড়িগ্রাম

২৬ মে ২০২৪


| ছবি: প্রতিনিধিঃ

আগামী ২৯ মে ৩য় ধাপে কুড়িগ্রামের ভূরুঙ্গামারী উপজেলা পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এতে দেশের বৃহত্তম দুই দল আওয়ামীলীগের উপজেলা সাধারণ সম্পাদক ও বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান নূরন্নবী চৌধুরী খোকন ও বিএনপি থেকে সদ‍্য বহিষ্কৃত উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক একেএম ফরিদুল হক শাহিন শিকদার অংশ নিয়েছেন। দিন যতই গড়াচ্ছে এই দুই প্রার্থীর মধ‍্যে জমজমাট লড়াইয়ের আভাস পাওয়া যাচ্ছে। খোকন চৌধুরী গত দুইবার থেকে চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করছেন। তাই খোকন চৌধুরীর সামনে এখন হ‍্যাট্রিক বিজয়ের হাতছানী। অপরদিকে চেয়ারম্যান পদে শাহিন শিকদার প্রথমবারের মতো বিজয়ের স্বাদ পেতে লড়াই চালিয়ে যাচ্ছেন। নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ৪ প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করলেও রফিকুল ইসলাম ও মতিয়ার রহমান নামের দুই প্রার্থী নির্বাচনের মাঠে দেখা মিলছেনা।

শা।হিন শিকদার গত মেয়াদে উপজেলার তিলাই ইউপির বিএনপির মনোনয়নে চেয়ারম‍্যান নির্বাচিত হয়েছিলেন।এছাড়া উপজেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা যুবদলের সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেছে। কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্ত অমান‍্য করে উপজেলা নির্বাচনে অংশ নেয়ার অপরাধে তাকে তার সদস‍্যপদ ও সাধারণ সম্পাদকের পদ থেকে গত ১৫ মে বহিষ্কার করেছে কেন্দ্রীয় বিএনপি। বহিষ্কারের পর থেকে শাহিন শিকদার ভোটের মাঠে এখন বেকায়দায় পড়েছেন।কারন বিএনপির তৃণমূল পর্যায়ের অধিকাংশ নেতাকর্মী তার সংগে মাঠে নেই। ইতোমধ‍্যে শাহিন শিকদারের নির্বাচনী প্রচারণায় অংশ নেয়ায় ইউনিয়ন পর্যায়ের ৪ নেতাকে বহিষ্কার করেছে উপজেলা বিএনপি। এই কারনে বহিষ্কারের ভয়ে বিএনপির তৃন মুলের নেতা কর্মীরা নির্বাচন থেকে তাদেরকে গুটিয়ে নিচ্ছেন।এছাড়াও দীর্ঘদিন থেকে উপজেলার প্রতিটি ইউনিয়ন ও উপজেলা বিএনপিতে দুটি গ্রুপে বিভক্ত।এক গ্রুপে নেতৃত্ব দিচ্ছেন শাহিন শিকদার অপর গ্রুপে আছেন উপজেলা বিএনপির সভাপতি কাজী মোস্তফা।শাহীন শিকদার দল থেকে বহিষ্কার হয়ে বিএনপির সমর্থন না পাওয়ায় নির্বাচনের মাঠে কোনঠাসা হয়ে পড়েছেন। তবুও হাল ছাড়ছেন না তিনি। গ্রামে গন্জে তার সমর্থকদের নিয়ে মাঠ চযে বেড়াচ্ছেন।এসব প্রতিকুলতার বাধা ডিঙিয়ে নির্বাচনের লড়াইয়ে প্রথমবারের মতো চেয়ারম্যান পদে বিজয়ের স্বাদ নিয়ে ঘরে ফিরতে চান তিনি।

নির্বাচন সুষ্ঠু হলে বিজয়ের ব‍্যাপারে শতভাগ আশাবাদী বলে জানান শাহিন শিকদার। অপরদিকে নুরন্নবী চৌধুরী খোকন নির্বাচনের মাঠে সুবিধাজনক অবস্হানে আছেন। আওয়ামীলীগের সকল অংগসংগঠনকে সাথে নিয়ে পাড়া মহল্লায় দিন রাত ভোটারদের দ্বারে দ্দ্বারে ভোট প্রার্থনা করছেন। ভোটারদের ব‍্যাপক সাড়াও পাচ্ছেন বলে জানান তিনি। তার দলে গ্রুপিং না থাকায় স্বস্তিতে আছেন আওয়ামী সমর্থিত এই চেয়ারম্যান প্রার্থী।

তবে ভোটের মাঠে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে ব‍্যাক্তি খোকন চৌধুরীর প্রতি দলের সাধারণ ভোটারদের ক্ষোভ না থাকলেও দলের স্হানীয় নেতা কর্মীদের প্রতি ক্ষোভ জমে আছে প্রচুর। দীর্ঘদিন থেকে ক্ষমতায় থাকার কারনে আছে পাওয়া না পাওয়ার বেদনা।এসব ছোট খাটো সমস‍্যা মিটিয়ে ফেলার চেষ্টা করছেন দলের দায়িত্ব প্রাপ্ত নেতারা। স্হানীয় পর্যায়ের সাধারণ ভোটারের জানান, ব‍্যাক্তি খোকন চৌধুরী একজন সজ্জন,অহিংস ও ভদ্র মানুষ। তার ক্ষমতা থাকাকালীন সময়ে বিরোধী দল বিএনপি সহ অন‍্যান‍্য দলের নেতা কর্মীরা নির্যাতিত বা হয়রানীর শিকার হননি। এই কারনে সব দলের সব মতের মানুষের কাছে একজন গ্রহনযোগ‍্য ব‍্যাক্তি হিসেবে পরিচিত। তার এই অহিংস মনোভাবের কারনে  বিরোধী মতের ভোটও তিনি পাবেন বলে জানান তারা। নূরন্নবী চৌধুরী খোকন বলেন আমি কারো উপকার করতে না পারলেও কারো ক্ষতি করিনি।তাই মহান আল্লাহর রহমতে সাধারণ মানুষ আমাকে ভোট দিয়ে ৩য় বারের মতো আমাকে বিজয়ী করবে বলে আশা করছি।

162